আলোচিত নায়ক-নায়িকারা এবার কী দিচ্ছেন?

মঙ্গলবার, ০২ জানুয়ারী ২০১৮ ১৮:৫২ ঘণ্টা
দেশের সিনেমায় ২০১৭ সাল নানা কারণে আলোচিত। কখনো তারকাদের ব্যক্তিগত ঘটনা, আবার কখনো সিনেমা নিয়ে শিল্পী-কলাকুশলীদের মুখোমুখি অবস্থান। শিল্পীদের কেউ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন ঘিরে অসহিষ্ণু আচরণ দেখিয়েছেন। নানা কারণে সিনেমার শিল্পীরা দেশে ও দেশের বাইরে সমালোচিত হয়েছেন। পুরোনো সব কিছুকে পাশ কাটিয়ে দেশের সিনেমার নায়ক-নায়িকারা নতুন বছর কী করতে পারেন, তার একটা চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে।

শাকিব খান

 

শাকিব খান

শাকিব খান কী ঘটাবেন?

পারিবারিক এবং পেশাগত, দুই কারণে বিতর্কের মুখোমুখি হন শাকিব খান। শুরুতে কিছুটা ঝামেলা হলেও পরে নিজেকে সামলে নেন। সবকিছু পাশ কাটিয়ে শাকিব কাজে মনোযোগ দেন। কিছু মন্তব্যের কারণে বছরের মাঝামাঝি চলচ্চিত্রের বিভিন্ন সংগঠন তাঁর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়। নিষিদ্ধ করা হয় তাঁকে। তারপরও সারা বছর দেশের চলচ্চিত্র ছিল শাকিবময়। পুরো বছর তাঁর পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। ছবিগুলোর মধ্যে আছে ‘সত্তা’, ‘নবাব’, ‘রাজনীতি’, ‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’। সারা বছর যে অর্ধশত সিনেমা মুক্তি পেয়েছে, তার মধ্যে ‘নবাব’ সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমা। বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’র জন্যও শাকিব প্রশংসিত হন। নতুন বছর শাকিবের কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে। নতুন কাজ শুরু করবেন, এমন সিনেমার সংখ্যাও কম না। এর মধ্যে আছে রাজীব বিশ্বাসের ‘মাস্ক’,  রাশেদ রাহার ‘নোলক’, উত্তম আকাশের ‘আমি নেতা হব’ এবং ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়্যা’। এসব সিনেমায় শাকিবের নায়িকা বুবলী, মিম ও ববি। প্রযোজক ও পরিচালকদের মতে, শাকিব খান এখনো একমাত্র নায়ক, যাঁর সিনেমা দিয়ে অন্তত লগ্নি ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। দেড় দশক ধরে এ অবস্থাই চলছে। অনেকে আবার মনে করছেন, এ বছর ঢাকার সিনেমা ব্যবসায়িকভাবে আরও সাফল্য পাবে। বছর শেষে এসে শাকিব ঘোষণা দেন, আবার সিনেমা প্রযোজনা করছেন তিনি। ‘প্রিয়তমা’ নামের এই সিনেমার কাজ কবে শুরু হবে, তা এখনো জানা যায়নি। তবে গত দুই বছরে শাকিব খান নিজেকে অনেক বদলেছেন। তার ছোঁয়া সিনেমায়ও পাওয়া যায়। নতুন বছর শাকিব নতুন কী ঘটাবেন, তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে সিনেমাগুলোর মুক্তি পর্যন্ত।

আরিফিন শুভ

আরিফিন শুভ

 শুভর নতুন মিশন

‘ঢাকা অ্যাটাক’, ‘প্রেমী ও প্রেমী’, ‘ধ্যাততারিকি’—গত বছর এই তিনটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে আরিফিন শুভর। ‘ধ্যাততারিকি’ ও ‘প্রেমী ও প্রেমী’ সিনেমাটি দুটি শুভকে আলোচনায় আনতে পারেনি। তবে বছরের শেষ দিকে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমাটি শুভকে আলাদা অবস্থানে নিয়ে গেছে। প্রযোজক ও পরিচালকদের মতে, এ সময় শুভর ক্যারিয়ারের জন্য এমন একটি সুপারডুপার হিট সিনেমার দরকার ছিল। নতুন বছর আরিফিন শুভর দুটি সিনেমার মুক্তি পুরোপুরি নিশ্চিত। একটি হচ্ছে চিত্রনায়ক আলমগীর প্রযোজিত ও পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’, অন্যটি জাকির হোসেন রাজুর ‘ভালো থেকো’। প্রথমটিতে শুভর বিপরীতে অভিনয় করেছেন কলকাতা ও ঢাকার সিনেমার আলোচিত মুখ ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত আর দ্বিতীয়টিতে তানহা তাসনিয়া। শুভর মতে, ‘আমি গল্প ভালো না লাগলে সিনেমার কাজ হাতে নেই না। আর সিনেমা কোনটা যে দর্শক হুমড়ি খেয়ে গ্রহণ করবে, তা কিন্তু কেউই বলতে পারবে না। আমি শুধু বলতে পারি, আমি মন দিয়ে কাজগুলো করার চেষ্টা করেছি।’

বুবলী

বুবলী

নতুন নায়কের সঙ্গে বুবলীর জুটি?
একসময় টেলভিশনে সংবাদ পাঠ করতেন শবনম ইয়াসমীন বুবলী। কখনো ভাবেননি রুপালি জগতের বাসিন্দা হবেন। কিন্তু এখন তিনি এই জগতের একজন। প্রথম সিনেমায় নায়ক হিসেবে পাশে পেয়েছেন শাকিব খানকে। পরিবারের নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হয়েছেন। সবকিছু ম্যানেজ করে প্রথম সিনেমা ‘বসগিরি’তে দর্শকের কাছে আলোচিত হন বুবলী। নাচ আর অভিনয়শৈলী দিয়ে দর্শকদের নজর কাড়তে সক্ষম হন। এ পর্যন্ত বুবলী যে সিনেমাগুলোতে কাজ করেছেন, সব কটিতে তাঁর নায়ক শাকিব খান। এখন পর্যন্ত তাঁর যে কয়টি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে, এসব ছবিতে তাঁর নায়ক শাকিব খান। বছর শেষে শোনা গেছে, নতুন বছর শাকিব নয়, অন্য কোনো নায়কের সঙ্গে দেখা যেতে পারে বুবলীকে। সবকিছু জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

অপু বিশ্বাস

 

অপু বিশ্বাস

 আবার বড় পর্দায় অপু?

অনেক দিন উধাও থাকার পর গত বছর ১০ এপ্রিল সন্তান আব্রামকে নিয়ে টেলভিশনের পর্দায় হাজির হন অপু বিশ্বাস। সেখানেই ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে তাঁর বিয়ের ব্যাপারটি প্রকাশ করেন অপু। এরপর তাঁর সংসারজীবন নিয়ে অনেক আলোচনা হয়েছে। পারিবারিক আলোচনা যখন তুঙ্গে, ঠিক তখনই অপু অভিনীত একটি সিনেমা মুক্তি পায়। বুলবুল বিশ্বাস পরিচালিত ‘রাজনীতি’তে তিনি অভিনয় করেন শাকিব খানের বিপরীতে। স্বামী, সংসার আর সন্তান নিয়ে আলোচনায় থাকলেও বছরের শেষ দিকে এসে জানা যায়, তিনি নতুন আরও দুটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হচ্ছেন। আবারও পর্দায় ব্যস্ত হবেন তিনি। নতুন সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর জানা গেল, অপুর কাছে শাকিব খান তালাকের নোটিশ পাঠিয়েছেন। এই নোটিশের পর অপু গণমাধ্যম থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখার চেষ্টা করেন। এর মাঝেই জানা গেল, বদিউল আলম খোকনের সিনেমা থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। এদিকে তালাকের নোটিশ পাওয়ার পর দেখা যায়, শাকিব সম্পর্কে অপু আগে যেভাবে মন্তব্য করেছেন, তা পাল্টে গেছে। এমনকি কয়েকটি অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে শাকিবের পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেছেন। এভাবে বছর শেষ হলেও অপু কবে নতুন সিনেমার শুটিং করছেন, তা অনিশ্চিত।

নুসরাত ফারিয়া

 

নুসরাত ফারিয়া

 হিন্দি সিনেমায় নুসরাত ফারিয়া?

বাংলাদেশ ও ভারতের কলকাতায় কাজ করে সারা বছর আলোচনায় ছিলেন নুসরাত ফারিয়া। মে মাসে ‘বস টু’ সিনেমার ‘আল্লাহ মেহেরবান’ গানটি মুক্তি পাওয়ার ব্যাপক সমালোচনার মুখোমুখি হন। গানটির কারণে হুমকিও পেয়েছেন। তোপের মুখে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান গানটিতে ‘আল্লাহ মেহেরবান’ বদলে ‘ইয়ারা মেহেরবান’ করতে বাধ্য হন। গত বছর ফারিয়ার আরও দুটি সিনেমা মুক্তি পায়। সিনেমা দুটি ফারিয়াকে আলোচনায় রাখলেও ব্যবসায়িকভাবে সাফল্যের মুখ দেখেনি। ২০১৫ সালে উপস্থাপনা থেকে সিনেমায় যোগ দেন ফারিয়া। এরপর জানা যায়, হিন্দি সিনেমায় অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে তাঁর। ‘গাওয়াহ্ : দ্য উইটনেস’ ছবিতে ইমরান হাশমির বিপরীতে নুসরাত ফারিয়ার অভিনয়ের খবরে ঢালিউডে হইচই পড়ে যায়। ২০১৬ সাল থেকে এই সিনেমার খবর। দেখা যাক, নতুন বছর কী হয়! এদিকে নতুন বছরে মুক্তি পাবে নুসরাত ফারিয়া অভিনীত ‘ইন্সপেক্টর নটি কে’। এই সিনেমায় তাঁর বিপরীতে নায়ক হিসেবে দেখা যাবে কলকাতার জিৎকে। জাজ মাল্টিমিডিয়ার ব্যানারে নির্মিত এই সিনেমার একটি গান মুক্তি পেয়েছে।

জিয়াউল রোশান

 

জিয়াউল রোশান

 রোশান কি রোশনাই ছড়াতে পারবেন?

জাজ মাল্টিমিডিয়ার ‘রক্ত’ সিনেমা দিয়ে সবার নজরে আসেন জিয়াউল রোশান। একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এমবিএ শিক্ষার্থী রোশান সিনেমাকে ভালোবেসে এখানেই মনোযোগী হয়েছেন। গত বছর নবাগত এই নায়কের দুটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। ‘ধ্যাততেরিকি’ ও ‘ককপিট’ সিনেমায় এই নায়কের উপস্থিতি নজর কেড়েছে ঠিকই, কিন্তু ব্যবসায়িক সাফল্যের মুখ দেখেনি সিনেমাগুলো। এ বছর মার্চ মাসে এই নায়কের ‘বেপরোয়া’ নামের আরেকটি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। এদিকে ‘ককপিট’ সিনেমা দিয়ে কলকাতায় এই নায়ককে নিয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে। সেই সুবাদে নতুন বছর যৌথ প্রযোজনার কয়েকটি সিনেমায় দেখা যেতে পারে বাংলাদেশের এই নায়ককে। নতুন বছর এই নায়ক তাঁর রোশনাই ছড়াতে পারেন কি না, সেটাই দেখার বিষয়।

পরীমনি

 

পরীমনি

 সাফল্যের মুখ দেখবেন পরীমনি?

পরীমনি তিন বছর আগে ‘ভালোবাসা সীমাহীন’ সিনেমার মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় আসেন। কোনো ছবি মুক্তির আগেই ৩০টি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হন। যতই সময় গড়াতে থাকে, সিনেমার কাজের চেয়ে বিয়ে আর নানাজনের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের কারণে তিনি আলোচিত-সমালোচিত হন। সিনেমা–সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মতে, বাংলাদেশের সিনেমায় অনেক বছর পর এমন একজনের দেখা মিলেছে, যাঁর মধ্যে একজন জনপ্রিয় নায়িকা হওয়ার সব যোগ্যতা আছে। শুধু নিজের মধ্যে একটু স্থিরতা এবং সিনেমাপ্রেম থাকলে তিনিই হয়তো মৌসুমী, শাবনূর, পপি, পূর্ণিমা, অপুর পর নির্ভরযোগ্য নায়িকা হতে পারতেন। গত বছর এই নায়িকার পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। এগুলো হচ্ছে ‘কত স্বপ্ন কত আশা’, ‘আপন মানুষ’, ‘সোনাবন্ধু’, ‘অন্তর জ্বালা’ ও ‘ইনোসেন্ট লাভ’। কোনো ছবিতেই তিনি সাফল্যের মুখ দেখতে পাননি। তাঁকে অনেকে ‘দুর্ভাগা’ নায়িকা হিসেবেও অভিহিত করেছেন। তবে বছরের শেষ দিকে এসে মুক্তি পেয়েছে পরীমনির নতুন সিনেমা ‘স্বপ্নজাল’-এর ট্রেলার। গিয়াস উদ্দিন সেলিমের এই সিনেমায় পরীমনিকে দেখে অনেকেই মুগ্ধ হয়েছেন। এখন সিনেমাটি মুক্তি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে সবাইকে, পরীমনি কি তাঁর ‘দুর্ভাগা’ ইমেজ কাটিয়ে উঠতে পারবেন?

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…