কাজই ১২১ বছরের বৃদ্ধের দীর্ঘায়ুর রহস্য

শুক্রবার, ১৮ মে ২০১৮ ১৭:০৯ ঘণ্টা

মেক্সিকোর গত ১০০ বছরের গড় আয়ুর হিসেব করলে দেখা যায়, প্রায় প্রতি ১০ বছরে সেখানে মানুষের গড় আয়ু বেড়েছে প্রায় ৭-৮ বছর করে।
যেন গড় আয়ুতে কোন বিশেষ বিপ্লব ঘটেছে।
 
ম্যানুয়েল গার্সিয়া হারনানডেজ, যার জন্মনিবন্ধন ও সরকারি পরিচয়পত্র অনুসারে বর্তমান বয়স ১২১ বছর। মেক্সিকোর ভেরাক্রাজ প্রদেশের 

জন্মনিবন্ধন সার্টিফিকেট অনুসারে গার্সিয়ার জন্ম ২৪ ডিসেম্বর ১৮৯৬। এই মানুষটিই হতে পারেন পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ। 

তিনি কখনোই গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস এ নিজের নাম লেখানোর জন্য ব্যতিব্যস্ত হননি। ডকুমেন্ট যদি সঠিক হয়, তাহলে তিনিই হবেন বর্তমানে 

বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ হিসেবে স্বীকৃত জাপানের মাসাজো নোনাকার থেকেও ৮ বছরের বড়। মাসাজো নোনাকা ১৯০৫ সালের ২৫ জুলাই 

জন্মগ্রহণ করেন। 

সে যাই হোক, বয়স তো একটা সংখ্যাই মাত্র। গার্সিয়া নিজেকে ৮০ বছরের মনে করেন।

গার্সিয়া বলেন, ‘আমি মনে করি, আমার বয়স ৮০ বছর। যদিও আমার এখন হাটতে একটু সমস্যা হয়।’

নয় বছরের বালক বয়স থেকেই তার বাবার সাথে মাঠে কাজ করা শুরু করেন গার্সিয়া। কিন্তু খুব অল্প সময়েই বাবাকে হারানো বেদনা তিনি ভুলতে 

পারেননি।

৪৫ বছরে বয়সে বিয়ে করা গার্সিয়ার পরিবারে ছিল ৫ সন্তান, ১৫ নাতি-নাতনি এবং তার নাতি-নাতনিদের ৬ সন্তান। ৮ বছর আগে তার স্ত্রী রোজা 

মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি প্রায় ৭০ বছরের দাম্পত্য জীবন কাটিয়েছেন।

স্ত্রীর মৃত্যুর পর থেকে মেয়ে তমাসার (৫৪) কাছে বসবাস শুরু করেন তিনি। তমাসার মেয়ে এবং তার পরিবারও সেখানে বসবাস করে একসাথে। 

সেখানে তিনি পারিবারিক খামারে মুরগি লালনপালন করেই নিজের জীবন কাটান। তিনি মনে করেন, এই মুরগি পালনই তাকে বাঁচিয়ে রাখে। 

সারাদিন শুয়ে-বসে কাটিয়ে দিলে তিনি অসুস্থ হয়ে যেতেন।

গার্সিয়া নিজের দীর্ঘ জীবনের সূত্র হিসেবে মনে করেন, পরিমিত ঘুম, ভোরে ঘুম থেকে ওঠা, সুসম খাদ্য গ্রহণ এবং দৈহিক কাজ। এখন আর আগের 

মত কাজ করতে পারেন না বলে আফসোস করেন তিনি। তার চামড়ায় বয়সের ভাজ পড়েছে, সূর্যের আলোতে তার দেখতে একটু সমস্যা হয় এখন।

তবুও এক জীবনে অনেক অভিজ্ঞতার এই মানুষটির এখন শেষ চাওয়া হল জীবনে আরও ৪টি বছর বাঁচা। অর্থাৎ ১২৫ বছর বয়স পর্যন্ত বাঁচা। সূত্র: এএফপি।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…