১৮ জুন সারাদেশে প্রাইভেট প্র্যাকটিস বন্ধ ঘোষণা চিকিৎসকদের

বৃহস্পতিবার, ০১ জুন ২০১৭ ১৭:৩৬ ঘণ্টা

আগামী ১৮ জুন সারাদেশে চিকিৎসকদের প্রাইভেট প্র্যাকটিস বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ)। 

রবিবার (২৮ মে) সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের এক জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ঢাকার সেন্ট্রাল হাসপাতালসহ দেশের বিভিন্নস্থানে হাসপাতাল ভাঙচুর ও চিকিৎসকদের মারধরের প্রতিবাদে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। তবে জরুরি চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রাখা হবে।

বিএমএর কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের জরুরি সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী ১৮ জুন সকাল ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টা, অর্থাৎ ১৯ জুন সকাল ৬টা পর্যন্ত সারাদেশে প্রাইভেট প্র্যাকটিস বন্ধ রাখবেন চিকিৎসকরা। আগামী মঙ্গলবার (৩০ মে) উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করা হবে।

বিএমএ মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী সাংবাদিকদের জানান, রবিবারের সভায় সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভাঙচুর, চিকিৎসকদের মারধর ও প্রথিতযশা একজন চিকিৎসকসহ ৯ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে  মিথ্যা মামলা, বিভিন্ন স্থানে রোগী মৃত্যুর কারণকে চিকিৎসকের অবহেলায় ঘটেছে বলে ঢালাও অভিযোগ, চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠান ভাঙচুর ও চিকিৎসকের ওপর হামলায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। এর প্রতিবাদে আগামী ২৯ মে থেকে ঈদুল ফিতরের ছুটির আগ দিন পর্যন্ত সারাদেশে চিকিৎসকরা কর্মস্থলে কালো ব্যাজ ধারণ করবে বলে সিদ্ধান্ত হয়। একই দিনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বিএমএ নেতারা আলোচনা করবেন।

ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আগামী ৪ জুন চিকিৎসক ও চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা চেয়ে মামলা করার সিদ্ধান্তও নিয়েছি আমরা। পরের দিন বিএমএ’র কেন্দ্রীয় কার্যকরী পরিষদের সঙ্গে সিনিয়র ও তরুণ চিকিৎসকের মতবিনিময় হবে। ৬ জুন সারাদেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে চিকিৎসকরা বিক্ষোভ সমাবেশ করবেন। ৭ জুন উদ্ভূত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিএমএ’র কেন্দ্রীয় নেতারা সাক্ষাৎ করবেন এবং ১১ জুন দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সারাদেশে প্রত্যেক চিকিৎসা সেবা প্রতিষ্ঠানের সামনে তারা মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করবেন। আগামী ৩ জুলাই বিএমএ অডিটোরিয়ামে বিএমএ’র সব শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সমন্বয়ে বর্ধিত সভা করবে বিএমএ।’

ভুল চিকিৎসায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থী আফিয়া জাহিন চৈতির মৃত্যুর অভিযোগ এনে গত ১৭ মে  সেন্ট্রাল হাসপাতাল ভাঙচুর করে শিক্ষার্থীরা। এই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় দুজন চিকিৎসককে গ্রেফতার করা হয়। প্রতিবাদে গত ২৩ মে সারাদেশে চিকিৎসকরা প্রাইভেট প্র্যাকটিস বন্ধ  রাখেন।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…