বিশেষ দিনগুলোতেও ব্যায়াম করা যাবে?

বুধবার, ১৪ জুন ২০১৭ ১৫:৩৪ ঘণ্টা

মাসিকের দিনগুলোতে বাইরে না বেরোনো, ঘরের কোণে জবুথবু হয়ে বসে থাকার ভ্রান্ত ধারণার দিন পেরিয়ে গেছে বহু আগেই। এ সময় স্বাভাবিক কাজকর্ম সবই করা সম্ভব; ব্যায়ামও চালিয়ে যেতে পারেন অনায়াসে। এতে কোনো ক্ষতি নেই। তবে কয়েকটি বিষয় জেনে রাখা ভালো।

আপনি কেমন অনুভব করছেন, সেটির ওপর নির্ভর করে ব্যায়াম বাছাই করুন। কখনো মাসিকের সময় একটু অসুস্থ অনুভব করতে পারেন, কারও ব্যথা বেশি হতে পারে। এ রকম হলে নিজেকে একটু বিশ্রাম দিন। স্বাভাবিকের চেয়ে একটু হালকা ব্যায়াম করুন।

মাসিকের সময় হাঁটাহাঁটি, দৌড়ানো নিশ্চিন্তে চালিয়ে যেতে পারেন; খেলাধুলার অভ্যাস থাকলে সেটিও বজায় রাখা যায়। ট্রেডমিলে দৌড়াতেও বাধা নেই। শরীরের অবস্থা বুঝে ব্যায়ামের গতি কমবেশি করে নিন। প্রয়োজন মনে করলে সময়টা কমিয়ে নিতে পারেন। খুব খারাপ লাগলে বাদও দিতে পারেন। পুরো মাসের মধ্যে দু-এক দিন ব্যায়াম না করলে আপনি পিছিয়ে পড়বেন না।

হাত-পা টান টান করে যেসব ব্যায়াম করতে হয় (স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ), সেগুলো এ সময়টায় করতে পারেন। চাইলে ওজন তোলার মতো ব্যায়ামও করতে পারেন। কারও কারও যোগব্যায়ামের অভ্যাস আছে। যেসব ব্যায়াম অনুশীলনের সময় মাথা নিচের দিকে এবং পা ওপরের দিকে রাখতে হয়, মাসিকের সময়টাতে সেগুলো এড়িয়ে চলা ভালো।

এ সময় ব্যায়ামের উপকারিতাও রয়েছে। ব্যায়াম করলে অনেকটা ভালো বোধ করবেন। হালকা বা মাঝারি তীব্রতার পেটব্যথা আর মাথাব্যথা কমাতেও কাজে দেবে ব্যায়াম। অবসন্ন ভাবও কমে যাবে। 

ডা. রাফিয়া আলম
হরমোন ও ডায়াবেটিস বিভাগ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…