অবশেষে স্থায়ীভাবে কারেন্ট জাল উৎপাদন বন্ধ হচ্ছে

মঙ্গলবার, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ২১:১৬ ঘণ্টা
Author :  

অবশেষে মুন্সীগঞ্জে স্থায়ীভাবে কারেন্ট জাল উৎপাদন বন্ধ হচ্ছে। মঙ্গলবার শহরের সার্কিট হাউজে জাল ব্যবসায়ীদের সাথে প্রশাসনের মতবিনিময়ে এই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে। সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মঙ্গলবার থেকে সকল ধরণের কারেন্ট জাল উৎপাদন বন্ধ করা হয়েছে। আজ বুধবার থেকে অবৈধ কারেন্ট জালের মনোফিলামেন্ট ফ্যাক্টরীগুলো বৈধ মাল্টিফিলামেন্টে রুপান্তরের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সেই লক্ষে ১৩ সদস্য বিশিষ্ট একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম ও পৌর মেয়র হাজী ফয়সাল বিপ্লব। মতবিনিময় সভাটি পরিচালনা করেন জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. অলিউর রহমান।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন জেলা পরিবেশ অধিদফতরের ডিডি মো মামুনুর রশীদ, পঞ্চসার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা, পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম শেখ মানোয়ার মোর্শেদ,সাংবাদিক মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল, কারেন্টজাল কারখানার মালিক মো হাবীবুর রহমান, হাজী মো শফিউদ্দিন, মো মহিউদ্দিন প্রমুখ।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ড. অলিউর রহমান জানান সরকারী হিসেবে জেলার ৪২টি অবৈধ কারেন্ট জাল ফ্যাক্টরী মনোফিলামেন্ট মেশিন মাল্টিফিলামেন্টে রুপান্তরিত করেছে। ইতোমধ্যে ২৮ অবৈধ কারেন্ট জাল ফ্যাক্টরী বন্ধ হয়ে গেছে। জেলায় এখনও ৮০টি অবৈধ কারেন্ট জাল ফ্যাক্টরী রয়েছে। এই সভায় অবৈধ কারেন্টজাল কারখানার মালিকরা অঙ্গীকার করেছেন আগামী তিন মাসের মধ্যে তারা মনোফিলামেন্ট মেশিন মাল্টিফিলামেন্টে রুপান্তরিত করবে।

জনকন্ঠ

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…