পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ ২২৯২ কোটি টাকার ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৫ ১১:০৫ ঘণ্টা

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের অবকাঠামো নির্মাণসহ ২ হাজার ২৯২ কোটি টাকার ১২ প্রকল্পের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন করেছে সরকার।

সচিবালয়ের বুধবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি এ অনুমোদন দেয়। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে কমিটির বৈঠকে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়ল আহমেদসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাকসুদুর রহমান পাটোয়ারী সাংবাদিকদের জানান, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ (প্রথম পর্যায়) প্রকল্পের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রাশিয়ান ফেডারেশন এটমস্ট্রয় এক্সপোর্টের সঙ্গে সম্পাদিত তৃতীয় চুক্তির এডিশনাল এগ্রিমেন্ট নম্বর-২ সম্পাদনের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ জন্য ব্যয় হবে প্রায় ১ হাজার ৪৮২ কোটি টাকা (১৯ কোটি ডলার)।

একই সঙ্গে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন (প্রথম পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় এটমস্ট্রয় এক্সপোর্ট এর সঙ্গে চতুর্থ চুক্তির মাধ্যমে সম্পাদিতব্য সেবা বা কার্যাদি ক্রয় ও চুক্তি সম্পাদনের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ জন্য ব্যায় হবে প্রায় ৩৬০ কোটি টাকা।

গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানি লিমিটেড (জিটিসিএল) কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘মহেশখালী, আনোয়ারা গ্যাস সঞ্চালনে পাইপলাইন নির্মাণ’ শীর্ষক প্রকল্পের ৮৯ কিলোমিটার পাইপলাইন নির্মাণে সর্বনিম্ন দরদাতার আর্থিক প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে মোট ব্যয় হবে ১৬৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকা।

আজকের বৈঠকে দুটি সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পের প্রস্তাব অনমোদন করা হয়েছে। প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম (কিলোওয়াট ঘণ্টা) ধরা হয়েছে ১৭ সেন্ট। প্রতিটি প্রকল্পের মেয়াদ ২০ বছর। সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলায় ৩২ মেগাওয়াট পিক সোলার পার্ক স্থাপন করবে এডিসান-পাওয়ার পয়েন্ট ও হাওর বাংলা-কোরিয়া গ্রীন এনার্জি। আর ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর উপজেলার সুতিয়াখালীর ভাংনামারি মৌজায় ৫০ মেগাওয়াট (এসি) সোলার পার্ক স্থাপনের প্রস্তাব অনুমোদিত হয়েছে। হিটাট-ডাইট্রোলিক-আইএফডিসি সোলার কনর্সোটিয়াম এটি স্থাপন করবে।

অতিরিক্ত সচিব বলেন, বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুৎতায়ন বোর্ডের (আরইবি) ‘পল্লী বিদ্যুৎ বিতরণ সিস্টেমের ক্ষমতাবর্ধন (ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ) প্রকল্পের পরামর্শক নিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন পেয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৩৭ কোটি ৭০ লাখ টাকা। আমেরিকা ভিত্তিক ‘এনআরইসিএ ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড’ পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে।

একই প্রতিষ্ঠানের ১৮ লাখ গ্রাহক সংযোগ প্রকল্পের সিঙ্গেল ফেজ ইলেক্ট্রোনিক মিটারের সংশোধিত ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যায় হবে ৫১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। বাংলাদেশের ‘মেসার্স টেকনো ইলেকট্রিসিটি’ প্রকল্পের কাজ পেয়েছে।

আরইবির অধীন আরও তিনটি প্রকল্পের পরামর্শক নিয়োগের প্রস্তাব অনুমোদন হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৩৩ কোটি ৭২ লাখ টাকা। বেলজিয়াম ও যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক দুটি প্রতিষ্ঠান এ প্রকল্পের কাজ পেয়েছে।

পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের ট্রাসফরমারসহ বিভিন্ন পণ্য সেবা ক্রয়ে আরও তিনটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ জন্য ১০৮ কোটি ৯০ লাখ টাকা ব্যয় হবে।

খাদ্য অধিদফতর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মংলা পোর্টে ৫০ হাজার মেট্রিকটন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন সাইলো নির্মাণ কাজের ভেরিয়েশন প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রাক্কলিত মূল্য ৪৪৩ কোটি ৯৯ লাখ টাকা থেকে অতিরিক্ত ৫৫ কোটি ৮২ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রস্তাবটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…