‘নির্বাচনে কাউকে সমর্থন দেবে না হেফাজত’

রবিবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৮ ১৪:৪৯ ঘণ্টা
Author :  

হেফাজতে ইসলাম নির্বাচনে কাউকে সমর্থন দেয়নি, ভবিষ্যতেও দেবেনা বলে জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমেদ শফী। 

শনিবার বিকেলে চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে একটি ধর্মীয় সংগঠনের আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন আল্লামা শফী। তার হয়ে লিখিত বক্তব্যটি পাঠ করেন হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা নুরু উদ্দিন।

এতে হেফাজত আমির বলেন, আমি রাজনীতির সঙ্গে জড়িত নই। প্রচলিত রাজনীতির সঙ্গে আমার কোনও সংশ্লিষ্টতাও নেই। তাই আমার বক্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত করবেন না। হেফাজতে ইসলাম একটি ধর্মভিত্তিক অরাজনৈতিক সংগঠন। নির্বাচনে হেফাজত কাউকে সমর্থন দেয়নি। দেবেও না। তবে নির্বাচনে যাতে নাস্তিকরা জয়যুক্ত হতে না পারে সেদিকে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে।

তিনি আরো বলেন, কওমী মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতি দেয়ার প্রতিদান হিসেবে সরকারকে ধন্যবাদ জানানো মানে কওমীদের বিক্রি করে দেয়া নয়। সরকারকে ধন্যবাদ দেয়ার অর্থ এই নয় যে, নীতি ও আদর্শচ্যুত হয়ে গেছি। কওমী শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে আমি সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছি। কওমী সনদ স্বীকৃতি বিল সংসদে পাশ হওয়ার পর একটি মহল আমার বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে। তারা বলছে, আমি আওয়ামী লীগ হয়ে গেছি। যারা এ অপপ্রচার করছে তারা মিথ্যাবাদী।

হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা দাবিতে আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কওমী মাদ্রাসার সনদের স্বীকৃতি ও হেফাজতে ইসলামের ১৩ দফা আন্দোলন এক নয়। ১৩ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ও স্থানীয় সাংসদ আনিসুল ইমলাম মাহমুদ বলেন, ‘রাজনৈতিক কোন উদ্দেশ্য নিয়ে সরকার কওমীদের স্বীকৃতি দেয়নি। মুলত কওমী সমাজের সার্বিক উন্নয়নের জন্য সরকার সনদের স্বীকৃতি দিয়েছে।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…