গোপন নজরদারি চালাবে ফেসবুক

শনিবার, ১০ জুন ২০১৭ ১১:১৪ ঘণ্টা

ব্যবসায়িক উন্নতির জন্য ব্যবহারকারীদের উপর গোপন নজরদারি চালানোর চিন্তা করছে ফেসবুক। সম্প্রতি সংস্থাটি এ ধরনের প্রযুক্তির পেটেন্ট আবেদন করেছে। দ্য ইনডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। 
 
ইনডিপেনডেন্ট বলছে, ওয়েবক্যাম কিংবা স্মার্টফোনের ক্যামেরা দিয়ে গোপনে তথ্য সংগ্রহ করতে চায় ফেসবুক। পেটেন্টের তথ্য অনুযায়ী, ওয়েবক্যাম ও স্মার্টফোনের ক্যামেরার সাহায্যে নিউজফিডের কনটেন্ট পড়ার সময় মানুষের চেহারা কীভাবে পরিবর্তন হয় বা মানুষ কি বলে গোপনে তা রেকর্ড করার পাশাপাশি দৃশ্য ধরে রাখবে ফেসবুক। পরে ওই তথ্য বা ছবি বিশ্লেষণ করে সে সম্পর্কে মানুষের অনুভূতি বোঝার চেষ্টা চালানো হবে। এতে ফেসবুকে মানুষকে দীর্ঘক্ষণ ধরে রাখা সম্ভব হবে। 

উদাহরণ হিসেবে বলা যায়-কোনো কনটেন্ট দেখে মানুষ যদি হাসে তখন ফেসবুকের অ্যালগরিদম ওই ধরনের পোস্ট বেশি দেখাবে। ভিডিওর ক্ষেত্রে যদি কোনো ভিডিও চালু হওয়ার পর দর্শক দ্রুত তা বন্ধ করে দেয় সে ধরনের ভিডিও আর দেখাবে না ফেসবুক। অর্থাৎ মানুষের ওপর গোপন নজরদারি করে তার অভিব্যক্তি বুঝে নিউজফিডে তথ্য দেখাবে ফেসবুক। অবশ্য, এটি পেটেন্ট বলে এখনো পরিকল্পনার মধ্যেই রয়েছে। এটি কার্যকর করা হবে কি না তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

যদিও অনেক আগ থেকেই সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান ক্যাসপারস্কির গবেষকেরা দাবি করেছিলেন, অ্যান্ড্রয়েড  স্মার্ট ফোন থেকে কাকে কখন কী ধরনের এসএমএস বা বার্তা পাঠানো হচ্ছে এবং অন্যান্য স্পর্শকাতর তথ্যগুলো অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্ম থেকে গোপনে সংগ্রহ করার চেষ্টা করে যাচ্ছে বিশ্বের বৃহত্তম সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ফেসবুক।

ক্যাসপারস্কি বলেছিলো- অ্যান্ড্রয়েডের জন্য ফেসবুক অ্যাপ্লিকেশনটির যে আপডেট এসেছে তাতে এমন একটি ফিচার রয়েছে যা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীর এসএমএস তথ্যগুলো সংগ্রহ করে নিতে পারে।

প্রসঙ্গত, মার্কিন গোয়েন্দা বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা অ্যাডওয়ার্ড স্নোডেন মার্কিন গোয়েন্দাদের গোপন নজরদারির তথ্য ফাঁস করেছিলেন। মার্কিন গোয়েন্দারা ফেসবুকে গোপনে নজরদারি করেন বলেও দাবি করেছিলেন স্নোডেন।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…