ইন্টারনেটে এক মিনিটে কী কী ঘটে?

সোমবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ১৩:৩৮ ঘণ্টা

বিশ্বব্যাপী ইন্টারনেটের পরিসর দিন দিন বাড়ছে। ইন্টারনেটের মাত্রা এত ব্যাপক যে এতে মাস ভিত্তিতে তথ্য দেখার পরিসংখ্যান বা দৈনিক ভিত্তিতে তথ্য দেখার পরিসংখ্যানগুলো বোঝা ভার। প্রতি দিনে ইন্টারনেটভিত্তিক বিভিন্ন সেবার মাধ্যমে কী পরিমাণ তথ্য আদান-প্রদান, ভিডিও দেখা, ছবি আপলোড বা ব্রাউজিং করা হয়, তা-ও বোঝা মুশকিল। ইন্টারনেটে প্রতি দিন বা মাসে নয়, প্রতি ৬০ সেকেন্ডে (এক মিনিটে) কী ধরনের ডেটা তথ্য লেনদেন ও অর্থ ব্যয় হয়, তার একটি তালিকা সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। প্রতি মিনিটে ইন্টারনেটে কী কী ঘটে, তা-ও বলা হয়েছে সেই তালিকায়।

ছবি শেয়ারিংয়ের সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে প্রতি মিনিটে শেয়ার হয় ৪৬ হাজার ২০০ ছবি। আর এতে ব্যয় করা হয় ৭ লাখ ৫১ হাজার ৫২২ ডলার। ১৮ লাখ স্ন্যাপ সৃষ্টির পাশাপাশি প্রতি মিনিটে টিন্ডারে ৯ লাখ ৯০ হাজার সোয়াইপ গণনা করা হয়। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা নানান তথ্য খোঁজার জন্য প্রতি মিনিটে ৩৫ লাখ বার অনুসন্ধান করেন গুগলে।

ছবি: রয়টার্সভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউবে ৬০ সেকেন্ডে ৪১ লাখ ভিডিও দেখা হয়। টুইটারের মাধ্যমে প্রতি মিনিটে ৪ লাখ ৫২ হাজার ২০০ টুইট করা হয়। ফেসবুকে প্রতি মিনিটে ৯ লাখ বার লগইন হয়। মেসেঞ্জার ব্যবহার করে মিনিটে ১৫ হাজার জিআইএফ পাঠানো হয়।

২০০ কোটি সক্রিয় ব্যবহারকারী প্রতি মাসে ফেসবুক ব্যবহার করেন। এর অর্থ হলো বিশ্বের মোট জনসংখ্যার ২৫ শতাংশের বেশি মানুষ বছরের যেকোনো এক মাসে অন্তত একবার ঢুঁ মারেন সামাজিক যোগাযোগের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই মাধ্যমে।

ছবি: রয়টার্সগুগলের প্লে স্টোর থেকে ৩ লাখ ৪২ হাজার অ্যাপ ডাউনলোড করা হয় প্রতি এক মিনিটে। হিসাবটা সহজেই ঘণ্টা, দিনে মিলিয়ে নিতে পারেন।

ছবি সংগৃহীতপেশাজীবীদের জন্য সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট লিঙ্কডইনে প্রতি সেকেন্ডে দুটি করে অ্যাকাউন্ট খোলা হয়, অর্থাৎ মিনিটে ১২০টি।

আমরা যখন ইন্টারনেটে এক মিনিট ধরে ব্যস্ত সময় পার করছি, ঠিক সে সময় সারা বিশ্বে নিজের প্রয়োজনে মানুষ ১৫ কোটি ৬০ লাখ মেইল পাঠাচ্ছে। তথ্যসূত্র: ইকোনমিক টাইমস ও ভিজ্যুয়ালক্যাপিটালিস্ট।

We use cookies to improve our website. By continuing to use this website, you are giving consent to cookies being used. More details…