Logo
ব্রেকিং নিউজ :
Wellcome to our website...

ক্রেতারা এখানো গরুর দাম বলছেনা! শংকায় খামারিরা

নাজির হোসেন
আপডেট সময় : Tuesday, July 21, 2020

5

ফয়সাল আহমেদ, ফরহাদ হোসেন পাপ্পু ও দিদাদ ওয়াসিম -তিন বন্ধু। কোরবানীর ঈদকে লক্ষ্য করে গরু মোটা তাজা করণের জন্য খামার গড়ে তুলেছেন। সে জন্য গত বছর কোরবানীর ঈদের পর থেকে তিন বন্ধু মিলে গরুর খামার গড়ে তুলেন। তাদের খামারের নাম “আদর্শ এগ্যো”। মুন্সীগঞ্জ জেলখানার ঠিক দক্ষিণ-পূর্ব কোণে এ খামারটি অবস্থান।

গত বছর তারা এখামারে দেশি ১৬ টি বিভিন্ন রঙের ষাঁড় গরু ক্রয় করেন। এখানে সরেজমিন দেখা গেছে, আদর্শ এগ্যো খামারে লাল, সাদা ও কালো রঙের দেশি ষাঁড় গরু। খামারে কোরবানীর ঈদে বিক্রির জন্য ১৬ টি গরু রয়েছে। এক একটির ওজন এক এক রকমের।

কোনটি ৩ মন, সাড়ে ৩ মন, ৪ মন ও ৫ মন ওজনের ষাঁড় গরু রয়েছে।

এখানে ৭৫ হাজার থেকে ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দামের গরু রয়েছে। খামারিরা ষাঁড় গরু গুলোকে নিজস্ব খেতের দেশিয় ঘাস, খৈল, কুরা খাইয়ে মোটা তাজা করেন।
এ খামারের বিষয় আদর্শ এগ্যোর পার্টনার ফয়সাল আহমেদ সাথে কথা হলে, তিনি বলেন আমরা রাজশাহী, সিরাজগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জসহ বিভিন্ন এলাকার বিভিন্ন রকমের দেশিয় ষাঁড় গরু সংগ্রহ করি৷

প্রতিনিয়ত পশু চিকিৎসক এর পরামর্শে ষাঁড় গরু গুলোকে সুষম খাদ্য দিয়েছি। আমারের গরু গুলোর রঙ দেখতে সুন্দর।
আমাদের ১৬ টি ষাঁড় গরু পালতে ১২ লাখের টাকা খরচ হয়েছে। ইতমধ্যেই অনেক ক্রেতা এসে গরু দেখে গেছে। কিন্তু ক্রেতারা এখনো দাম বলছেনা।
তবে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শংকায় আছি৷ তবে আমরা স্বল্প মূল্যে কোরবানীর পশু গুলো বিক্রির জন্যে মনষ্হির করেছি।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com
0Shares
0Shares