Logo
ব্রেকিং নিউজ :
Wellcome to our website...

ভারতে একদিনে ২ হাজারের বেশি মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক 273 বার
আপডেট সময় : Wednesday, June 17, 2020
ভারতে একদিনে ২ হাজারের বেশি মৃত্যু

1

১১ হাজার ছাড়িয়ে গেল ভারতে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা। শুধু তা-ই নয়, উদ্বেগ বাড়িয়ে দেশে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে দু’হাজারেরও বেশি মানুষের। আক্রান্ত সাড়ে তিন লাখেরও বেশি।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে দু’হাজার ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। একদিনে মৃত্যুর নিরিখে যা এখনও অবধি সর্বোচ্চ। দেশে এখনও অবধি মোট ১১ হাজার ৯০৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন করোনার কারণে। মহারাষ্ট্রেই মৃত্যু হয়েছে পাঁচ হাজার ৫৩৭ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৪০৯ জন মারা গিয়েছেন সেখানে। মৃত্যু বাড়ছে রাজধানী দিল্লিতেও। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৪৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই বৃদ্ধির জেরে গুজরাটকে ছাপিয়ে মৃত্যু তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে চলে এল দিল্লি। গুজরাটে মারা গিয়েছেন এক হাজার ৫৩৩ জন। তামিলনাড়ুতে ৫২৮ জন। মৃত্যুর নিরিখে দেশের পঞ্চম স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। এ রাজ্যে এখনও অবধি ৪৯৫ জন মারা গিয়েছেন কোভিডে। এরপর রয়েছে মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, তেলেঙ্গানা, হরিয়ানা।

এদিকে দিল্লির করোনা পরিস্থিতিও ক্রমে ভয়াবহ হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৮৫৯ জন। দেশের রাজধানীতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৪ হাজার ৬৮৮। আর মোট মৃতের সংখ্যা ১ হাজার ৮৩৭। এমন পরিস্থিতিতে করোনা রোগীর চিকিত্‌সা পরিকাঠামো আরও উন্নত দক্ষিণ দিল্লির রাধা স্বামী স্পিরিচ্যুয়াল সেন্টারকে পরিবর্তিত করা হচ্ছে কোভিড কেন্দ্রে। থাকবে ১০ হাজার শয্যা। আর এটিই হতে চলেছে বিশ্বের সর্ববৃহত্‍ কোভিড কেয়ার ফেসিলিটি। দক্ষিণ দিল্লির জেলা শাসক বি এম মিশ্র জানিয়েছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের দেওয়া কোভিড স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সব পরিকাঠামো তৈরি করা হয়েছে। ২০টি ৫০০ শয্যার হাসপাতালের সমতূল্য হবে এই কোভিড কেন্দ্র। ৪০০ জন চিকিৎসক দুই শিফটে কাজ করবেন। থাকবেন ৮০০ জন স্বাস্থ্যকর্মীও। ১ হাজার বেডের সামনে অক্সিজেনর ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। চিকিৎসা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য রয়েছে সিসিটিভিও। প্রয়োজনে প্রায় ৩ লাখ করোনা আক্রান্তকে এই কোভিড সেন্টারে রাখা যাবে। পাশাপাশি, দিল্লিতে একাধিক জায়গায় ৫০০ বেডের মিনি হাসপাতাল তৈরি করা হচ্ছে।

অন্যদিকে বুধবার সাতটি চিকিৎসক সংগঠনের যৌথ মঞ্চের প্রতিনিধিদের সঙ্গে নবান্নে দ্বিতীয় দফার বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পূর্ব পরিকল্পনার নিরিখে বর্তমান অবস্থার পর্যালোচনা এবং করোনা নিয়ন্ত্রণে ভবিষ্যতের রূপরেখা তৈরিই প্রাধান্য পেতে চলেছে সম্ভাব্য আলোচ্যসূচিতে। করোনা রোগীর সংখ্যা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাওয়ায় রাজ্যের সব বেসরকারি হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসার উপযোগী শয্যা বৃদ্ধির আবেদন জানিয়েছে ক্লিনিক্যাল এস্ট্যাবলিশমেন্ট রেগুলেটরি কমিশন। অন্যদিকে, করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে উল্লেখযোগ্য সাফল্য মিলেছে বাংলায়। রাজ্যে মোট করোনামুক্ত মানুষের সংখ্যা ছাপিয়ে গিয়েছে করোনা নিয়ে চিকিৎসাধীন, অ্যাক্টিভ রোগী, ব্যক্তির তুলনায়।

স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১৫ জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব মেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা রাজ্যে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৯০৯, যার মধ্যে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বর্তমানে ৫ হাজার ৩৮৬ জন। আর ২৪ ঘণ্টায় রোগমুক্তি হয়েছে ৫৩৪ জনের। ফলে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা বাংলায় বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ২৮।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com
0Shares
0Shares