Logo
ব্রেকিং নিউজ :
Wellcome to our website...

লৌহজংয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ৬ বেইলি ব্রিজ

লৌহজং প্রতিবেদক
আপডেট সময় : Thursday, November 5, 2020

5

লৌহজংয়ে ঝুঁকিপূর্ণ ছয়টি বেইলি ব্রিজ রয়েছে। যে ব্রিজ দিয়ে মুন্সীগঞ্জের চার উপজেলার হাজারো মানুষ প্রতিদিন চলাচল করে। পুরনো নড়বড়ে বেইলি ব্রিজ দিয়ে চলাচলে দুর্ভোগের যেন শেষ নেই এলাকাবাসীর। এ ছোট ব্রিজগুলোর কারণে প্রায়ই লেগে থাকে যানজট। ঘটে নানান দুর্ঘটনা।
এলাকাবাসী বলছেন, ব্রিজগুলো ভেঙে নতুন করে পাকা ব্রিজ নির্মাণ করা হোক। অথবা কিছু কিছু ব্রিজ ভেঙে সড়ক নির্মাণ করা হোক।
সরেজমিনে দেখা যায়, মাওয়া থেকে বালিগাঁও বাজার পর্যন্ত ছয়টি নড়বড়ে বেইলি ব্রিজ রয়েছে। মুুন্সীগঞ্জের লৌহজং, টঙ্গীবাড়ী, মুন্সীগঞ্জ সদর ও শ্রীনগর উপজেলার আংশিক মানুষ এ সড়ক দিয়ে প্রতিনিয়ত চলাচল করে।

ছয়টি ঝুঁকিপূর্ণ বেইলি ব্রিজ থাকার ফলে দুর্ভোগের যেন শেষ নেই এ চার উপজেলার হাজারও মানুষের। বেইলি ব্রিজগুলো উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের ছাতার মসজিদ, বেজগাঁও ইউনিয়নের মালিরঅংক বাজার, গাওদিয়া ইউনিয়নের ঘোলতলী ও পূর্ব ভুড়দিয়া, খিদিরপাড়া ইউনিয়নের খেতেরাপাড়া ও খোলাপাড়া এলাকার প্রধান সড়কে অবস্থিত।
ছোট নড়বড়ে ব্রিজগুলো দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে, স্থানীয় গাংচিল পরিবহন, ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান, পিকাপ, সিএনজি, প্রাইভেট ক্যার, আটোরিক্সা, ভ্যান, মোটরসাইকেলসহ শত শত পরিবহন।
পথচারী আহম্মেদ রেজাউল হক জানান, ছোটবেলা থেকেই ব্রিজগুলোর করুণ অবস্থা দেখছি। মাঝে মাঝে রিকশার চাকা আটকে যায়। ফলে ছোটখাটো দুর্ঘটনাও ঘটে।
আটোচালক আবুল শেখ বলেন, এ উপজেলায় অনেকগুলো লোহার ব্রিজ আছে। অন্য সব উপজেলায় এতো বেইলি ব্রিজ নেই। আমরা সারাদিন আটো চালাই। রাস্তায় কিছু কিছু কারণে দুর্ঘটনা হয়-এরমধ্যে বেইলি ব্রিজ থাকার কারণে অনেক দুর্ঘটনা ঘটে বলে দাবি এ চালকের।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির বলেন, আমি সড়ক ও সেতুসংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছেন লৌহজংয়ে ছয়টি বেইলি ব্রিজের মধ্যে একটিও থাকবে না। ব্রিজগুলো তুলে নতুন পাকা ব্রিজ নির্মাণের অনুমোদন হয়েছে। শিগগিরই নির্মাণকাজ শুরু করা হবে।


এ জাতীয় আরো খবর
Theme Created By ThemesDealer.Com
0Shares
0Shares