Logo
ব্রেকিং নিউজ :
Wellcome to our website...
মুন্সীগঞ্জের টংগিবাড়ী, শ্রীনগর, লৌহজং ও গজারিয়া উপজেলায় নতুন করে আরও ১২ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৩০৪ জনে। তবে, সিভিল সার্জন অফিসের বিস্তারিত
বিধি নিষেধের তোয়াক্কা না করেই, জমে উঠেছে সিরাজদিখান উপজেলার মার্কেটগুলোতে ঈদের বাজার। সরকারি সিদ্ধান্তের পর আটটি শর্ত জুড়ে দিয়ে ব্যবসায়ীদের সীমিত পরিসরে দোকানপাট খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত দেয়। তবে আটটি শর্তের
মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেছেন, বুধবার থেকে পরবর্তী নিদের্শনা অব্দি জেলা ‘লক ডাউনের’ আওতাভ‚ক্ত থাকবে। কোন দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শপিংমল সহ সবকিছুই পুনরায় ‘লক ডাউনের’ রীতিনীতি অনুসরণ করতে
সারা বাংলাদেশের মধ্যে করোনার সংক্রমিতের ক্ষেত্রে তালিকার উপরের দিকেই স্থান মুন্সীগঞ্জের। বিশেষত জেলা সদর ও মুন্সীগঞ্জ পৌরসভায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাধিক্য পরিলক্ষিত হয়েছে। জেলায় মোট ২৯৬ জন পজেটিভ শনাক্তের মধ্যে কেবল
সদরের প্রানকেন্দ্র সিপাহীপাড়া বাজারে নিয়মে না মেনে ফুটপাতে ঈদের কেনাবেচার হাট জমে উঠেছে। কোন প্রকার সামাজিক দূরত্ব না মেনে গাদাগাদিতে ফুটপাত ও মার্কেটের দোকানগুলোতে হচ্ছে ঈদের পোশাক কেনা বেচা। এদিকে
মুন্সীগঞ্জে লাগাতার বেড়েই চলছে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। সাত দিনের ব্যবধানে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েছে ১০০ জন। বুধবার জেলায় নতুন করে ১২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট
Theme Created By ThemesDealer.Com
0Shares
0Shares